চিন থেকে ভারতে আসতে চাইছে ১০০০ এর বেশি নামি কোম্পানি তৎপর মোদী সরকার, বাড়বে কর্মসংস্থানও

 চিনের (China) কাছে করোনা ভাইরাসের মহামারী আর্থিক রুপে ঘাতক হতে চলেছে। ১ হাজারেরও বেশি আন্তর্জাতিক কোম্পানি নিজেদের ব্যবসা গুটিয়ে ভারতে (India) আসতে চাইছে। তাঁরা ভারত সরকারের সাথে ভারতে আসার জন্য যোগাযোগ করছে। আশা করা যাচ্ছে যে, যদি কোম্পানি গুলো ভারতে এসে ব্যবসা শুরু করে, তাহলে দেশের লক্ষ লক্ষ যুবক নতুন করে কাজের সন্ধান পাবে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, করোনা ভাইরাসের মহামারীর কারণে সৃষ্টি হওয়া সমস্যার মধ্যে প্রায় ১ হাজার বিদেশী কোম্পানি ভারত সরকারের আধিকারিকদের সাথে কথা বলে ভারতে কোম্পানি খোলার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে। এগুলোর মধ্যে কমপক্ষে ৩০০ টি কোম্পানি মোবাইল, ইলেক্ট্রনিক্স, মেডিকেল ডিভাইস, টেক্সটাইলস তথা সিনথেটিক ফেবরিক্স এর। যদি কথাবার্তা সফল হয়, তাহলে এটা চিনের জন্ন্য বড়সড় ঝটকা হতে চলেছে।

এই কোম্পানি গুলো ভারতকে বৈকল্পিক ম্যানুফ্যাকচারিং হাব হিসেবে দেখে। আর সরকারকে বিভিন্ন স্তরে সামনে এরা নিজেদের প্রস্তাব পেশ করে ফেলেছে। ভারতীয় দূতাবাস তথা রাজ্যের শিল্প মন্ত্রালয়ের সামনে এরা নিজের প্রস্তাব পেশ করেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, কেন্দ্র সরকারের এক আধিকারিক জানান, ‘বর্তমানে প্রায় ১০০০ কোম্পানি বিভিন্ন স্তর যেমন প্রমোশনাল সেল, সেন্ট্রাল গভর্মেন্ট ডিপার্টমেন্ট আর রাজ্য সরকারের সাথে কথাবার্তা চালাচ্ছে। এদের মধ্যে আমরা ৩০০ টি কোম্পানিকে আপাতত চিহ্নিত করেছি।”

পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক কোম্পানি দ্বারা চিনের বাইরে ফ্যাক্টরি লাগানোর সম্ভাবনা দেখে অনেক রাজ্যের সরকারই অ্যাক্টিভ হয়ে গেছে। উত্তর প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, উড়িষ্যা আর রাজস্থানের সরকার বিদেশী বিনিয়োগকারীদের আকর্ষিত করার কাজ শুরু করে দিয়েছে। রাজ্য সরকার ফ্যাক্টরির জন্য জমি খোঁজার কাজও শুরু করে দিয়েছে। রাজ্য সরকার কোন সমস্যা ছাড়াই যাতে নতুন ফ্যাক্টরি চালু করা যায়, সেই জন্য অনেক নতুন নিয়ম লাগু করছে।

Authored By Kousik Mondal

Hi, I am Kousik Mondal from Kolkata, India. I am a professional career counselor for the past 5+ years. Love reading news and strongly believe only awareness can create a better future. And A blog scientist by the mind and a passionate blogger by ❤️heart ??

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button